নদী ভাঙনের কবলে দক্ষিন নারায়নখোলা

Spread the love

 

গত কয়েকদিনের ভারী বর্ষণ ও বন্যার কারনে ব্রহ্মপুত্র নদের ভাঙ্গনের কবলে বিলীন হওয়ার পথে নকলা উপজেলার চরঅষ্টধর ইউনিয়নের দক্ষিন নারায়নখোলা গ্রামের একটি পাকা মসজিদ, একটি প্রাচীন করবস্থানসহ বেশ কিছু বসত বাড়ী।

নদের ভাঙ্গন অব্যহত থাকায় যেকোন সময় বিলীন হতে পারে দক্ষিন নারায়খোলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনটিও। প্রতিদিনই নতুন করে ভাঙ্গছে নদীর তীর। এভাবে ভাঙ্গন অব্যাহত থাকলে পুরো দক্ষিণ নারায়ণখোলা গ্রামটি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পাওে বলে আশংকা করছে স্থানীয়রা।

নদী ভাঙ্গনের শিকার হয়ে আবাদী জমি, সহায় সম্বল ও বাড়ীঘর হারিয়ে এ গ্রামের বাসিন্দারা এখন চিন্তায় দিশেহারা। কেউ ভিটে বাড়ী হারিয়ে অনেকে কর্মহীন হয়ে পড়ায় রুটিরুজির সন্ধানে ঘুরছেন মানুষের দ্বারে দ্বারে। আবার অনেকেই আশ্রয় নিয়েছে স্থানীয় পাকা স্কুলের বারান্দায়। এ নদীর ভাঙ্গনের কবল থেকে রেহাই পেতে হলে এখানে জরুরী ভিত্তিতে নদী রক্ষা বাধ নির্মাণের জোরালো দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী। তা না হলে অব্যাহত ভাঙ্গনে নদীগর্ভে বিলীন হবে এ গ্রামটি উপজেলার মানচিত্র থেকে।

দক্ষিণ নারায়ণখোলা মসজিদ কমিটি ও দক্ষিন নারায়খোলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি দেলোয়ার হোসেন মাষ্টার বলেন, মসজিদটিতো নদী গর্ভে বিলিন হয়েছেই এভাবে চলতে থাকলে খুব শিঘ্রই স্কুলটিও নদীতে বিলীন হবে। স্থানীয় এমপি ও কৃষি মন্ত্রী মতিয়া চেীধুরীকে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ