অতিরিক্ত ফি আদায়ের প্রতিবাদে বিএম কলেজে বিক্ষোভ

Spread the love
।। নিজস্ব প্রতিবেদক।।
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ফরম ফিলাপের ফি’র বাইরে কলেজের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের নামে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছেন শিক্ষার্থীরা।
শনিবার বেলা ১১টায় বরিশাল ব্রজেমোহন (বিএম) কলেজের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের (অনার্স ৩য় বর্ষ) সকল শিক্ষার্থীর ব্যানারে বিএম কলেজের সামনে এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। এসময় শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে রাখে। এতে করে বরিশাল বিএম কলেজে রোডে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। ভোগান্তিতে পরে সাধারণ মানুষ। পরে পুলিশ প্রশাসন শিক্ষার্থীদের সড়ক থেকে সরিয়ে দেয়। এরপর তারা কলেজের প্রশাসনিক ভবনের সামনে বিক্ষোভ করে অধ্যক্ষর কার্যালয় তালাবদ্ধ করে রাখে।
শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক ফরম ফিলাপে নির্ধারিত ফি’র বাইরে উন্নয়ন ফি, মসজিদ ও পূজা ফি, লাইব্রেরি ফি, অধিভুক্তি ফি, ব্যবস্থাপনা ফি, পরিবহন ফিসহ নানান খাত প্রদর্শন করে সারা বছর সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায় ও শিওর ক্যাশে টাকা গ্রহণ পদ্ধতিতেও বাড়তি টাকা দিতে হচ্ছে। শিক্ষার্থীরা এই ধরনের সকল ফি বন্ধের দাবি জানায়।
তারা বলেন, প্রতিবছর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ফি ছাড়াও কলেজের নানান উন্নয়নমূলক কাজের কথা বলে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে কলেজ কর্তৃপক্ষ পাঁচ হাজার টাকার উপরে অর্থ নিচ্ছে। এতে করে অতিরিক্ত অর্থ গুনতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। বিষয়টি নিয়ে আমরা একাধিকবার আন্দোলন করেছি কিন্তু তাতে কোন সুফল পাওয়া যায়নি। এসময় তারা কলেজের প্রত্যেক বিভাগের শিক্ষার্থীদের মোটের উপরে ২ হাজার টাকা করে কমানো এবং টাকা প্রদানকালে বাড়তি সার্ভিস চার্জ নেওয়া শিওর ক্যাশ’র মাধ্যমে টাকা গ্রহণ পদ্ধতি বন্ধের দাবি জানান।
এই বিষয়ে বরিশাল ব্রজমোহন (বিএম) কলেজের অধ্যক্ষ শফিকুল ইসলাম সিকদার বলেন, নতুন করে কোন ফি বর্ধিত করা হয়নি। শিক্ষার্থীরা যে বিষয়টি নিয়ে আন্দোলন করছে তা ২০১৬ সালে বর্ধিত করা হয়েছিলো। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ফি বাবদ নেওয়া হচ্ছে ২৩৩৫ টাকা এবং কলেজের বেতন ও অন্যান্য ফি বাবদ নেওয়া হচ্ছে ২১৫০ টাকা। কিছু বিভাগে আরো ২/১শ টাকা করে বেশি নেওয়া হচ্ছে।
Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ