ইউটিউবে রাষ্ট্র বিরোধী গুজব ছড়ানোর দায়ে ২ জন গ্রেফতার

Spread the love

।। মো. মাহমুদ হোসাইন।।

ঢাকা ক্রাইম ডটকম: ইউটিউবে রাষ্ট্র বিরোধী গুজব ছড়ানোর অভিযোগে রাজধানীর উত্তরা আবাসিক এলাকা থেকে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‍্যাব। আটককৃতরা হলেন- মো. খালেদ বিন আহম্মেদ (৩০) ও মো: হিজবুল্লাহ (২১)।

আজ শনিবার (৬ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজার র‍্যাবের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান লেফটেন্যান্ট কর্ণেল সারওয়ার বিন কাশেম।

তিনি বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইউটিউবে SK TV নামক অনলাইন চ্যানেলে রাষ্ট্রের অতি গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তি বর্গের বিরুদ্ধে সংবাদ /ভিডিও আপত্তিকর -মানহানিকর তথ্য প্রকাশ করে আসছিল। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে গত ৫ অক্টোবর মধ্যরাতে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানাধীন উত্তরা সেক্টর ১৩ এর আবাসিক এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামি মো: খালিদ বিন আহম্মেদ ২ ভাই ও ১ বোনের মধ্যে দ্বিতীয় । তার বাবা দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক। সে ২০১৬ সালে মধ্য বাড্ডা আলাতুন্নেছা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি এবং ২০০৮ সালে হাজীগঞ্জ দেশগাঁও ডিগ্রী কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেছেন।

২০১৪ সালে সে হাজীগঞ্জ আইডিয়াল কলেজ অব এ্যাডুকেশনে বিবিএ তে ভর্তি হয়। বিবিএতে অধ্যায়নরত অবস্থায় সে হাজীগঞ্জ ক্যামব্রিয়ান স্কুলে পার্টটাইম চাকরি নেয় এবং ৬ মাস উক্ত স্কুলে চাকুরী করে। ২০১৬ সালে তার ছোট ভাই গোলাম মাওলা নাহিদের মাধ্যমে ইউটিউবে ভিডিও আপলোড, এডিটিং কাজে যুক্ত হন। সে বাংলাদেশ ইসলামি ছাত্র শিবির করেন এবং তার বাবা জামায়াত ইসলামী বাংলাদেশ এর সাথে জড়িত।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামি মো: খালিদ বিন আহম্মেদ ইউটিউবের SK TV নামক অনলাইন চ্যানেলের এ্যাডমিন বলে জানায়। মো: খালিদ বিন আহম্মেদ বিভিন্ন ভিডিওতে ভয়েস দিত এবং তার অপর সহযোগী হিজবুল্লাহ বিভিন্ন ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে সংগ্রহ করে এডিট পূর্বক তা ইউটিউবে আপলোড করতেন। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি আরও জানান, SK TV নামক ইউটিউব চ্যানেলটি প্রায় ২ বছর যাবত পরিচালনা করে আসছে। উক্ত ইউটিউব চ্যানেল রাষ্ট্র বিরোধী বিরুপ সমালোচনা, রাষ্ট্রের অতি গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তি বর্গের বিরুদ্ধে মানহানিকর, কুরুচিকর ও বিভ্রান্তিমূলক তথ্য প্রকাশ করে আসছিল। সেই বিভ্রান্তিমূলক গুজব বিশ্বাসযোগ্য করার জন্য ভিত্তি হিসেবে দেশের বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের আংশিক ব্যবহার করত বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়।

আটককৃত অপর আসামি মো: হিজবুল্লাহ জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, সে তার পরিবারে ৩ ভাইয়ের মধ্য দ্বিতীয়। তার বাবার উত্তরখান এলাকায় প্লাষ্টিকের ব্যবসা রয়েছে। সে ২০১৩ সালে মডেল একাডেমির দেইচর ফরিদগঞ্জ থেকে এসএসসি এবং ২০১৫ সালে হাজীগঞ্জ মডেল কলেজ হতে এইচএসসি পাশ করে। বর্তমানে সে মহাখালীস্থ একটি প্রাইভেট একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে কাজ করেন। তার এক বন্ধুর মাধ্যমে মো: খালিদ বিন আহম্মেদ এর সাথে পরিচয় হয় এবং খালিদ তাকে উক্ত কাজ করার প্রস্তাব দেয়। তারপর থেকে সে প্রায় দেড় বছর যাবত SK TV নামক ইউটিউব চ্যানেলটির সাথে জড়িত আছেন।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ