রাজধানীতে নাশকতার অভিযোগে অর্ধশতাধিক মামলা; আটক ৩৫০

Spread the love

।। নিজস্ব প্রতিবেদক।।

 

ঢাকা ক্রাইম ডটকম: নাশকতার মামলায় বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির শিশু বিষয়ক সম্পাদক ও মির্জাপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি প্রাক্তন এমপি আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকীসহ শতাধিক ব্যক্তির রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। একইসঙ্গে দুই শতাধিক ব্যক্তির জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেওয়া হয়েছে।

রাজধানীর বিভিন্ন থানার মামলায় বুধবার দুপুরে ঢাকা সিএমএম আদালতে আসামিদের বিভিন্ন মেয়াদের রিমান্ড ও কারাগারে আটক রাখার আবেদন করে পুলিশ। পুলিশের আবেদন এবং আসামিদের জামিনের আবেদনের ওপর বেলা সাড়ে ৩টা থেকে সাড়ে ৪টা পর্যন্ত শুনানি শেষে রিমান্ড মঞ্জুর ও কারাগারে পাঠানোর ওই আদেশ দেন আদালত।

রাজধানীতে নাশকতার অভিযোগের মামলায় ৪০টির বেশি থানার অর্ধশতাধিকেরও বেশি মামলায় ওই সকল ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

রিমান্ডে ও কারাগারে যাওয়া আসামিদের মধ্যে রয়েছেন রাজধানীর কোতয়ালী থানার ৮ জন, বংশাল থানার ৩ জন, মতিঝিল থানার ১৬ জন, শাহবাগ থানার ১৬ জন, পল্টন থানার ৩৮ জন, রামপুরা থানার ৮ জন, ধানমন্ডি থানার ১০ জন, হাজারীবাগ থানার ৫ জন, শাহবাগ থানার ১০ জন, রমনা থানার ৭ জন, মোহাম্মাদপুর থানার ১৬ জন, মিরপুর থানার ২ জন, শেরেবাংলানগর থানার ১৩ জন, তেজগাঁও থানার ৪১ জন, হাতিরঝিল থানার ২৩ জন, উত্তরা পূর্ব থানার ৪ জন, উত্তরা পশ্চিম থানার ৫ জন, ওয়ারী থানার ১২ জন, কামরাঙ্গীরচর থানার ৭ জন, শ্যামপুর থানার ১৩ জন, কদমতলী থানার ৫ জন, যাত্রাবাড়ী থানার ১৭ জন, ডেমরা থানার ৭ জন, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার ২৭ জন, খিলগাঁও থানার ১ জন, লালবাগ থানার ১১ জন, চকবাজার থানার ৮ জন, কাফরুল, পল্লবী, সবুজবাগ, দক্ষিনখান ও ক্যান্টনমেন্ট থানার ২ জন করে, গুলশান, ভাটারা থা নার ১ জন, নিউমার্কেট থানার ৯ জন এবং দারুস সালাম থানার ৫ জন আসামি রয়েছেন। এছাড়া অন্যান্য থানায় আরও কিছু আসামি থাকলেও  সে সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট তথ্য পাওয়া যায়নি।

উল্লেখিত আসামিদের গত মঙ্গলবার সকাল থেকে বুধবার দুপুর পর্যন্ত গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তবে অধিকাংশ আসামিকে ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ থেকে এবং সমাবেশে আসার পথে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের মধ্যে সাবেক এমপি আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকীকে মঙ্গলবার বিকেলে ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশের প্রধান ফটক থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সাবেক ছাত্রনেতা আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী টাঙ্গাইল-৭ মির্জাপুর আসন থেকে ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি ও ১২ জুনের নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে এমপি নির্বাচিত হন।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ