বনরক্ষী সোহেলের মরদেহ উদ্ধার

Spread the love

।। বাগেরহাট প্রতিনিধি ।।

বাগেরহাটের বলেশ্বর নদীতে নিখোঁজ বনরক্ষী সোহেল রানা তালুকদারের (৩৭) মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস ও বনবিভাগ।

শুক্রবার দুপুর সাড়ে বারোটার দিকে বলেশ্বর নদের প্রায় এক কিলোমিটার দক্ষিণে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার জলাঘাট সাপলেজা এলাকা থেকে ভাসমান অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টা দিকে নিয়মিত টহলের সময়ে ট্রলার থেকে পা পিছলে বলেশ্বর নদীতে পড়ে নিখোঁজ হন সোহেল রানা তালুকদার।

বাগেরহাট ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক (ডিএডি) মো. মাসুদ সরদার বলেন, ‘জলাঘাট সাপলেজা এলাকায় স্থানীয় জেলেরা একটি মরদেহ ভাসতে দেখে বনবিভাগ ও ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়। পরে আমরা মরদেহটি উদ্ধার করি। উদ্ধার হওয়া মরদেহটি সোহেল রানার বলে শনাক্ত করেছে বনবিভাগের কর্মীরা। তার মরদেহ সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জে নিয়ে আসা হচ্ছে।’

বনরক্ষী সোহেল রানা তালুকদার কক্সবাজার জেলার উখিয়া উপজেলার মুহুরীপাড়া গ্রামের এম এ হামিদ তালুকদারের ছেলে। তিনি ২০০৬ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর বনবিভাগে যোগ দেন। পরে ২০১৬ সালের ৩ মার্চ বাগেরহাটের সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের বগী স্টেশনে যোগদান করেন।

নিহত সোহেল সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরখোলা রেঞ্জের বগী শেনে বনরক্ষী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তার নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে ফায়ার সার্ভিস, বনবিভাগ ও কোস্টগার্ড তাকে উদ্ধারে তল্লাশি চালিয়ে আসছিল।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ