‘অ্যাটর্নি জেনারেলের বক্তব্য বেআইনী ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত’

Spread the love

।। নিজস্ব প্রতিবেদক ।।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে নাইকো দুর্নীতি মামলা চলমান অবস্থায় অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের বক্তব্য বেআইনী ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত বলে দাবি করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন।

নাইকো মামলায় কানাডার মাউন্টেড পুলিশ ও এফবিআই এর প্রতিবেদন নিয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের করা বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করে শুক্রবার (২৩ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ নিজ চেম্বারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ব্যারিস্টার খোকন এ দাবি করেন।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার (২২ নভেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে হাওয়া ভবনকে প্রভাবিত করে নাইকো থেকে ঘুষ নেওয়ার বিষয়ে এফবিআই ও কানাডিয়ান পুলিশ অভিযোগের প্রমাণ পেয়েছে বলে জানান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকনের অভিযোগ, আমাদের দুর্নীতি দমন কমিশনের আইন অনুসারে নিজস্ব পাবলিক প্রসিকিউটর (রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী) কর্তৃক দুদকের মামলা পরিচালনার নিয়ম থাকা সত্ত্বেও অ্যাটর্নি জেনারেল বারবার নাইকো মামলা নিয়ে বক্তব্য দিয়ে মামলাটিকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছেন। তার এ ধরণের বক্তব্য বেআইনী এবং রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত।

তিনি আরও বলেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে খালেদা জিয়াকে কারাগারে এবং তারেক রহমানকে বিদেশে রেখে অ্যাটর্নি এ ধরণের বক্তব্য দিচ্ছেন।

ব্যারিস্টার খোকন দাবি করেন, মূলত শেখ হাসিনা প্রথমবার ক্ষমতায় থাকাকালে নাইকোর সঙ্গে চুক্তি হয়েছিলো, এরই ধারাবাহিকতায় খালেদা জিয়া তার সরকারের আমলে ফাইলটি অনুমোদন দিয়েছিলেন। তাই কানাডিয়ান পুলিশ ও এফবিআই এর প্রতিবেদন একপেশে। এমনকি এই মামলা নিয়ে অ্যাটর্নি জেনারেলও একপেশে বক্তব্য রাখছেন।

মাহবুবে আলম জানিয়েছিলেন, তিনি কানাডা পুলিশ ও এফবিআই এর প্রতিবেদন বিশেষ জজ আদালত-৯ দাখিল করেন এবং যারা তদন্ত করেছেন তারা যাতে এ দেশে এসে তাদের পাঠানো প্রতিবেদনের স্বপক্ষে আদালতে বক্তব্য পেশ করতে পারেন সে বিষয়ে আবেদন জানান।

নাইকো মামলা চলাকালীন সময়ে এর তদন্ত প্রতিবেদনে এবং সাক্ষির তালিকায় কানাডা পুলিশ কিংবা এফবিআই কর্মকর্তাদের নাম না থাকা সত্ত্বেও তাদেরকে দেশে এনে তাদের তৈরি করা তদন্ত প্রতিবেদনের পক্ষে বক্তব্য দিতে অ্যাটর্নি জেনারেল আদালতে যে আবেদন করেছেন সেটি আইন সম্মত নয় বলেও দাবি করেন ব্যারিস্টার খোকন।

সরকার নির্বাচনকে সামনে রেখে খালেদা জিয়ার সুনাম নষ্ট করতে এ ধরণের সংবাদ সম্মেলন করছে বলে দাবি জানান খালেদা জিয়ার এই আইনজীবী।

এ সময় সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন খালেদা জিয়ার আইনজীবী প্যানেলের অন্যতম সদস্য ব্যারিস্টার এ কে এম এহসানুর রহমান।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ