ভোটের লড়াইয়ে দুই সাবেক পুলিশ প্রধান

Spread the love

।। নিজস্ব প্রতিবেদক ।।

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এবার ভোটের লড়াইয়ে মাঠে রয়েছেন সাবেক দুই পুলিশ প্রধান (আইজিপি)। এদের একজন মো: আব্দুল কাইয়ুম জামালপুর-২ আসন থেকে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচনী মাঠে লড়তে চান। অপরদিকে আরেকজন নূর মোহাম্মদ কিশোরগঞ্জ-২ (কটিয়াদী-পাকুন্দিয়া) আসনে নৌকার প্রতীক নিয়ে লড়তে চান।

জানাগেছে, জামালপুর-২ (ইসলামপুর) আসনের জন্য বিএনপির মনোনয়ন ফরম তুলেছেন সাবেক আইজিপি মো: আব্দুল কাইয়ুম। তিনি দল থেকে মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী বলে তার ঘনিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।

আব্দুল কাইয়ুম ২০০৫ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত পুলিশের আইজির দায়িত্ব পালন করেন। পুলিশে চাকরি জীবনে তিনি নোয়াখালী, রাজশাহী, নওগাঁ জেলার পুলিশ সুপারের দায়িত্ব পালন করেন। এ ছাড়াও তিনি সিলেট মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের উপ-কমিশনার, পুলিশ সদরদপ্তরের সহকারী মহাপরিদর্শক, উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি), ডিএমপির কমিশনার এবং সারদা পুলিশ একাডেমির অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করেন।

আব্দুল কাইয়ুম ১৯৪৮ সালে জামালপুর জেলার বকশীগঞ্জ উপজেলার পাখিমারা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৩ সালে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন তিনি।

অপরদিকে কিশোরগঞ্জ-২ আসনের আওয়ামী লীগের হয়ে ভোটে লড়তে চান সাবেক আইজিপি নূর মোহাম্মদ। এজন্য তিনি গত এক বছরেরও বেশি সময় ধরে মাঠে প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায় থেকে নূর মোহাম্মদকে এরই মধ্যে সবুজ সংকেত দেয়া হয়েছে বলে দাবি করছেন তার ঘনিষ্ঠজনরা।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ২০০৭ সালের ২৯ জানুয়ারি থেকে ২০১০ সালের ৩১ আগস্ট পর্যন্ত আইজিপি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন নূর মোহাম্মদ। তার জন্ম কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার চান্দপুর গ্রামে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাস করার পর ১৯৮৬ সালে রংপুরে পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে চাকরি জীবন শুরু করেন। এরপর ঢাকা মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার, উপ-কমিশনার, পুলিশ কমিশনার, ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি এবং রাজশাহীতে ডিআইজির দায়িত্ব পালন করেন। নূর মোহাম্মদ সচিব ও রাষ্ট্রদূত হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ