পুলিশের কেউ খারাপ আচরণ করলে দায়ভার তাকেই নিতে হবে: ডিএমপি কমিশনার

Spread the love

।। মো. মাহমুদ হোসাইন।।

ঢাকা ক্রাইম ডটকম : ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মো. আসাদুজ্জামান মিয়া বলেন, আমরা প্রজাতন্ত্রের কর্মচারি, জনগণের সেবক। জনগণের উপর চড়াও হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। আমাদের আইন প্রয়োগে হবো কঠোর কিন্তু আচরণে হবো কোমল। আমাদের আচরণ কেমন হবে তার প্রশিক্ষণ ধারাবাহিকভাবে দেয়া হচ্ছে। আগামীতেও দেয়া হবে। পুলিশ যাতে পেশাদার আচরণ করে সেজন্য নজরদারি রয়েছে। এরপরেও যদি কেউ খারাপ আচরণ করে তবে তার দায়-দায়িত্ব তার। এর দায় পুলিশ বাহিনী নেবে না।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

সম্প্রতি চেকপোস্টে তল্লাশী না করে এক নারীর সাথে বিরুপ ও খারাপ আচরণের ভিডিও ভাইরাল হবার পর পুলিশের আচরণগত উন্নতিতে কেনো ওরিয়েন্টশন আছে কিনা জানতে চাইলে ডিএমপি কমিশনার বলেন, গভীর রাতে চেকপোস্টে এক নারী সিএনজি যাত্রীকে পুলিশের তল্লাশীকালে খারাপ আচরণের ভিডিওটি আমাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। যে এই ভিডিওটি আপলোড করেছেন তিনি পুলিশেরেই সদস্য। তিনি ভেবেছিলেন ওই ভিডিওটা প্রকাশ করলে তার হয়তো সুনাম হবে। কিন্তু তিনি যে অপেশাদার আচরণ করেছেন তা তিনি বোঝার ক্ষমতাও নেই।

কমিশনার বলেন, ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তে ৪৮ ঘন্টার সময় দিয়ে মতিঝিল বিভাগের উপ-কমিশনারের নের্তৃত্বে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। এর দায়-দায়িত্ব নির্ধারণ করে, যারা ওই নারীর সাথে বিরুপ আচরণ করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। শুধু এই ক্ষেত্রে নয়, আগামীতেও যে কোনো পুলিশ সদস্য নাগরিকের সাথে পেশাদার আচরণের বাইরে কিংবা খারাপ আচরণ করে, পুলিশের ব্যাপারে নেতিবাচক প্রভাব তৈরি করে তবে তার বিরুদ্ধে আমাদের বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান সুস্পষ্ট, কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

কমিশনার বলেন, আমরা ধারাবাহিকভাবে চেষ্টা করে কমিয়ে এনেছি। আমরা শুধু মটিভেশন কিংবা প্রশিক্ষণই দেই না, এই ধরণের অপেশাদার আচরণ যে সব পুলিশ সদস্য করে তাদের বিরুদ্ধে আমরা কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করি।

নগরীর নিরাপত্তায় অনেক স্থানে চেকপোস্ট রয়েছে। সেখানে খারাপ আচরণ ও হয়রানির করার বিষয়ে অভিযোগ আসে। তাদের ব্যবহার পরিবর্তনে কোনো উদ্যোগ রয়েছে কিনা জানতে চাইলে কমিশনার বলেন, আগে প্রায় প্রতিদিনই অভিযোগ পেতাম। আমাদের মটিভেশন আছে বলেই তা কমে আসছে। অনেক পরিবর্তন এসেছে। আগে যেভাবে ব্যাপক হারে খারাপ আচরণের অভিযোগ আসতো, আমি দায়িত্ব নিয়ে বলছি, তা কিন্তু এখন শতকরা ৫ ভাগও খারাপ আচরণের অভিযোগ আসে না।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, ডিএমপি’র অতিরিক্ত কমিশনার মীর রেজাউল আলম, যুগ্ম কমিশনার  মোসলেহ উদ্দিন আহমেদ, যুগ্ম কমিশনার মফিজ উদ্দীন আহমেদ, উপ-কমিশনার মাসুদুর রহমান, উপ-কমিশনার লিটন কুমার সাহা, উপ-কমিশনার প্রবীর কুমার রায়।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ