হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যু, হাসপাতালে ভাঙচুর

Spread the love

জামালপুর প্রতিনিধি: জামালপুর শহরের পপুলার প্রাইভেট হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনার পর হাসপাতালের মালিক ও চিকিৎসকরা পালিয়ে গেলে নবজাতকের ক্ষুব্ধ স্বজনরা এক কর্মকর্তাকে বেদম প্রহার ও হাসপাতালে ভাঙচুর করেন। পরে খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

মৃত নবজাতকের দাদি জোবেদা বেগম জানান, রবিবার ভোরে মেলান্দহ উপজেলার ফুলকোচা গ্রামের মো. আনন্দ মিয়ার গর্ভবতী স্ত্রী সুখি বেগমকে মুমুর্ষ অবস্থায় শহরের পপুলার প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওই গর্ভবতীকে তাৎক্ষণিক সিজার করানোর কথা বলে ভর্তি করে। গর্ভবতী মা’র অবস্থার অবনতি হলেও সময় মতো চিকিৎসক না আসায় বিপাকে পড়ে স্বজনরা। সকালে সাড়ে ৮টা দিকে ওই গর্ভবতীকে সিজারের পর মৃত কন্যা সন্তান হয়। খবর পেয়ে বিকাল ৩টার দিকে নবজাতকের স্বজনরা ক্লিনিকে এক কর্মকর্তাকে বেদম প্রহার করতে থাকে। এসময় ক্লিনিকের মালিক ও চিকিৎসক পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যুর বিচার দাবি করেন স্বজনরা।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পলাতক থাকায় এ বিষয়ে তাদের সাথে কথা বলা যায়নি।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ