সবার জন্য সমান সুযোগ ও প্রাপ্যতা নিশ্চিত করতে হবে

Spread the love

সমাজের সব মানুষের জন্য সমান সুযোগের পাশাপাশি সবাই যাতে প্রাপ্ত সুযোগ কাজে লাগাতে পারে, সে নিশ্চয়তা দাবি করেছেন স্বাধীনতা পুরস্কার জয়ী অর্থনীতিবিদ ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ। ঢাকা স্কুল অব ইকোনমিকস (ডিএসসিই) আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

জনসেবা ও সমাজসেবায় অবদানের জন্য স্বাধীনতা পদক অর্জন করায় গত শনিবার ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদকে সংবর্ধনা দিয়েছে ঢাকা স্কুল অব ইকোনমিকস (ডিএসসিই)। এ উপলক্ষে রাজধানীর জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমি (নায়েম) মিলনায়তনে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তাকে ক্রেস্ট প্রদান করেন ঢাকা স্কুল অব ইকোনমিক্সের উদ্যোক্তা ক্লাবের শিক্ষার্থীবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে বক্তৃতায় ড. খলীকুজ্জামান আহমদ বলেন, মানুষের কী প্রয়োজন, সেই বিষয়গুলোতে প্রাধান্য দিতে হবে। এতে সবাই তার ন্যায্য অধিকার পেতে পারে। এগুলো বাস্তবায়ন করতে পারলেই কেবল মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন হবে। তিনি বলেন, ভিখারি থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত চরাঞ্চলের মানুষেরও অধিকার রয়েছে। তাদেরকে সুযোগ দিতে হবে। সবার কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে। কর্মসংস্থান সৃষ্টির সুযোগ বাড়াতে উদ্যোক্তা তৈরিতে মনযোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে এক্ষেত্রে ঢাকা স্কুল অব ইকোনমিক্সের উদ্যোক্তা অর্থনীতি বিভাগের কার্যক্রমের প্রশংসা করেন। ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের অধীনে ঢাকা স্কুল অব ইকোনমিক্সে ¯œাতক পর্যায়ে উদ্যোক্তা অর্থনীতি চালু করার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেওয়ার উপর গুরুত্ব দেন তিনি।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে কাজী খলিকুজ্জমান আহমদের সহধর্মীনি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক জাহেদা আহমদ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ড. কাজী সালেহ আহমেদ, ঢাকা স্কুল অব ইকোনমিকসের প্রশাসনিক প্রধান মো. সেলিম, নায়েমের সাবেক মহাপরিচালক প্রফেসর শেখ একরামুল কবির, ঢাকা স্কুল অব ইকোনমিকসের উদ্যোক্তা অর্থনীতি বিভাগের সমন্বয়ক ও সামষ্টিক অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক ড. মুহম্মদ মাহবুব আলী, পিকেএসএফের ডিএমডি ড. মো. জসীম উদ্দিন, বিউপি’র নির্বাহি পরিচালক ড. নিলুফার বানু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। তাকে সম্মাননাপত্র প্রদান করেন ঢাকা স্কুল অব ইকোনমিক্সের নির্বাহী কর্মকর্তা সুখী কবির।
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অধ্যাপক মুহম্মদ মাহবুব আলী বলেন, গ্রামীণ অর্থনীতি ও গ্রামের মানুষের উন্নয়নে কাজ করছেন ড. খলীকুজ্জমান আহমদ। একেবারে প্রান্তিক পর্যায়ের মানুষের আয় বৃদ্ধিতে পিকেএসএফের মাধ্যমে বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়নে নেতৃত্ব দিচ্ছেন এ বরেণ্য অর্থনীতিবিদ। ড. খলীকুজ্জমান আহমদ গণমানুষের উন্নয়নে নিরলস কাজ করায় আন্তর্জাতিক পুরস্কার প্রাপ্তির যোগ্য বলেও মত দেন তিনি।

উল্লেখ্য, ড. খলীকুজ্জমান আহমেদ পিকেএসএফের চেয়ারম্যান এবং ঢাকা স্কুল অব ইকোনমিকসের গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান। তিনি দারিদ্র্য বিমোচনের মাধ্যমে সমাজসেবায় অবদানের জন্য ২০০৯ সালে একুশে পদক পান। – প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ