সাংবাদিকের উপর হামলা; আওয়ামীলীগ-যুবলীগের সংবাদ বয়কটের ঘোষণা

Spread the love

যশোর প্রতিনিধি: যশোরের বাঘারপাড়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কালের কণ্ঠের স্থানীয় প্রতিনিধি চন্দন দাসের উপর হামলার প্রতিবাদে বাঘারপাড়া আওয়ামীলীগ ও যুবলীগের ইতিবাচক সকল সংবাদ বয়কটের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে বাঘারপাড়া প্রেসক্লাবের দপ্তর সম্পাদক হুমায়ুন কবীর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।  

সোমবার (২৫ মার্চ) দুপুরে বাঘারপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে চন্দন দাসের উপর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক কামরুজ্জামান লিটন ও তার কয়েক সহযোগী অতর্কিতে হামলা চালায়।  ওই সময় সেখানে দলের বেশ কয়েকজন সিনিয়র নেতা উপস্থিত ছিলেন। 
সাংবাদিকরা আশা করেছিলেন, আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ বিষয়টি মীমাংসা করে দেবেন।  কিন্তু ঘটনা স্থানীয় এমপিসহ যুবলীগের নেতাদের অবহিত করার পরও কোনও পদক্ষেপ না নেওয়ায় প্রেসক্লাবে জরুরি সভা ডাকা হয়। 

সভায় এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ, নিন্দা ও হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানানো হয়।  একইসাথে বাঘারপাড়া আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের ইতিবাচক সকল সংবাদ বয়কটের সিদ্ধান্তও গৃহীত হয়। 

প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল কবিরের সভাপতিত্বে হামলার শিকার চন্দন দাস ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহ-সভাপতি খান কেএম শরাফত উদ্দীন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফরিদুজ্জামান, যুগ্ম সম্পাদক আজিজুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ তরুণ মণ্ডল, দপ্তর সম্পাদক হুমায়ুন কবীর, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক শাহাজাহান সাজু, সিনিয়র সাংবাদিক আজম আলী খান, সঞ্জিব গাইন, মঞ্জুর মুর্শিদ, রেহমান জেমাম বাবু, আওয়াল হোসেন, শামীম রেজা, অনুপম দে, প্রদীপ বিশ্বাস, রাকিব হোসেন, আহাদ আলী, নূর হাসান লাল্টু, আশিষ বিশ্বাস, শান্ত দেবনাথ প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ