যশোরে অস্ত্র-গুলি ও বোমাসহ আটক ৪

Spread the love

যশোর প্রতিনিধি: ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট গোলোযোগে হামিদপুরের এক বাড়িতে বোমাবাজি ভাঙচুর লুটাপাট ও শ্লীলতাহানীর ঘটনা ঘটিয়েছে একটি সংঘবদ্ধ চক্র। পুলিশি অভিযানে ওই ঘটনায় জড়িত এহসানুল হক রাজু নামে এক যুবককে অস্ত্রগুলিসহ আটক হয়েছে। সে একই এলাকার আব্দুল মান্নানের ছেলে। এব্যাপারে এলাকার ১১ জনকে আসামি করে মামলা হয়েছে।

গত ২৫ মার্চ বিকেল ৪ টায় হামিদপুর একাডেমীর ফুটল খেলা সংক্রান্ত একটি বিষয় নিয়ে স্থানীয় মেম্বার শরিফুল ইসলাম ও এলাকার মৃত আব্দুল হাকিমের ছেলে ইসমাইল হোসেনের বাকবিতন্ডা হয়। এসময় অস্ত্রধারী এহসানুল হক রাজুসহ একটি সংঘবদ্ধ চক্র তাদের হত্যার হুমকি দেয়। এঘটনার পর তারা চলে যায়। পরে রাত আনুমানিক ৯টা ১০ মিনিটে ওই রাজুর নেতৃত্বে এলাকার মৃত আমির হোসেনের ছেলে আনোয়ার হোসেন মানিক, আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে রাসেল, লিয়াকত আলীর শেখে ছেলে সাইফুল ইসলাম রাব্বি, মৃত আলতাফ শেখের ছেলে আকবর আলী, আমির হেসেন ছেলে হিরা, মোতালেব হোসেনের ছেলে রহমান, মিজানুর রহমানের ছেলে শাহারিয়ার, আব্দুল আজিজের ছেলে আব্দুস সামাদ, মৃত মোতালের ছেলে কবির ও বারান্দিপাড়ার বরকত আলীসহ অজ্ঞাত নামা আরো ১০/১২ জন ইসমাইলের বাড়িতে হানা দিয়ে বোমাবাজি করে আতংকিত করে। অস্ত্রের মহড়া দেয়, ইসমাইলকে মারপিট করে। তাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে ভাইপো সেলিমকেও মারপিট করে ওই রাজু গং। এরপর ইমসমাইলের স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌসী এগিয়ে আসলে তার শ্লীলতাহানী ঘটায় ওই চক্রটি।

এ সংবাদে পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে রাজু, মানিক, রাসেল ও রাব্বিকে আটক করে।

এসময় রাজুর শরীর তল্লাসী করে কাছ থেকে একটি ওয়ান স্যুটার গান, মানিক রাসেল ও রাব্বির কাছ থেকে ৬টি তাজা বোমা একটি হাসুয়া উদ্ধার হয়। এঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ