basic-bank

নীলফামারীতে জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে বন্যার্তদের জন্য জরুরী ত্রাণ ও অর্থ বরাদ্দ

বাদশাহ শাহজাহান, নীলফামারীঃ নীলফামারীতে বন্যার পানি কমতে শুরু করছে। ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ জানায়, অাজ ১৫অাগষ্ট মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার ৫১ দশমিক ৯৫ সেন্টিমিটার নীচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে জেলার ছয় উপজেলার বন্যার্ত ও বানভাসি মানুষদের জরুরী ভিত্তিতে ১শ ৮০.৫  মেঃটন চাল ও নগদ ৭লাখ টাকা বরাদ্দ দেন।

ডিমলা উপজেলায় ৯৩মেঃটন চাল ও নগদ ৫লাখ টাকা, জলঢাকায় ৪৪মেঃটন চাল ও ২লাখ টাকা, নীলফামারী সদরে ৩০মেঃটন চাল, কিশোরগঞ্জে ৯মেঃটন চাল ও ডোমারে সারে ৪মেঃটন চাল বরাদ্দের বিষয়টি নিশ্চিত করেন জেলা ত্রাণ ও পূর্নবাসন কর্মকর্তা এ,টি,এম, অাকতারুজ্জামান। তিনি অারও জানান, বন্যার্তদের সহযোগিতায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

গত ৯ অাগষ্ট বুধবার থেকে ১৩ অাগষ্ট রোববার পর্যন্ত টানা পাঁচ দিনের ভারি বর্ষন অার উজান থেকে নেমে অাসা পানিতে জেলার সকল উপজেলায় সরণ কালের ভয়াবহ বন্যা দেখা দেয়। এতে সবগুলো নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পায়, গ্রাম এলাকার রাস্তাঘাট পানিতে তলিয়ে যায়, বন্যার পানিতে অসংখ্য পুকুরের মাছ ভেসে যায়, হাজার হাজার একর জমির রোয়া পানিতে নিমজ্জিত হয়, স্কুল কলেজের মাঠ পানিতে ভরে যায়। এতে করে চরম দুর্ভোগে পড়ে খেটে খাওয়া মানুষসহ সকল শ্রেণী পেশার লোকজন।

এদিকে,সরকারি অনুদানের পাশাপাশি, ব্যক্তিগত উদ্দ্যোগে গত ১৪অাগষ্ট রোববার সকালে জেলার জলঢাকা উপজেলায়, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অাশ্রয় নেয়া ২শ পরিবারেরব মাঝে ৩শত করে টাকা প্রদান করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অালহাজ্ব সৈয়দ অালী। এসময় তারা সকল বিত্তবান ব্যক্তিদেরকে তাদের সাহায্যের জন্য এগিয়ে অাসার অাহ্বান জানান।

 

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।