সদ্য প্রাপ্ত
র‌্যাবের অভিযানে উত্তরা থেকে জেএমবি’র ১ সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার টাঙ্গাইলে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ, মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি! নেত্রকোনাতে হত্যা মামলায় একজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড সাংবাদিক রিয়াজ হায়দারের উপর হামলাকারীদের শাস্তির দাবী গাজীপুরে বিড়ালের মুখ থেকে উদ্ধার হওয়া নবজাতকটি মারা গেছে প্রশ্নপত্র জালিয়াতি; ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬ ছাত্র গ্রেপ্তার র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে তালিকাভুক্ত ২ সন্ত্রাসী নিহত গাজীপুরে আবাসিক হোটেলে অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগে ১৭ জনের কারাদন্ড ফেনীতে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে আহত কি কারণে হরিনাকুন্ডু পানি উন্নয়ন বোর্ডের গচ্চা যাচ্ছে সাড়ে ২৭ লাখ টাকা!

গাইবান্ধায় বন্যায় সবজির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি।

Spread the love
মো: রবিউল ইসলাম, গাইবান্ধা: দ্বিতীয় দফা বন্যায় গাইবান্ধার সাত উপজেলায় শাকসব্জীর ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এতে চরম হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছে সবজি চাষীরা। ইতোমধ্যে ক্ষতিপুষিয়ে নিতে কৃষি বিভাগ আগাম সবজি চাষে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। জেলা কৃষি বিভাগ সুত্রে জানা যায়, প্রথম দফা বন্যায় কৃষকরা শাক সবজি চাষে ক্ষতিগ্রস্ত হলেও তা পুষয়ে নেওয়ার জন্য নতুন করে সবজি চাষ শুরু করে।
কিন্তু দ্বিতীয় দফা বন্যার তা পানিতে ভেঁসে গেলে কৃষকদের সে আশা দুরাশায় পরিণত হয়। জেলা কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা যায়, এ পর্যন্ত বন্যায় জেলার মোট ৮৪১ হেক্টর শাকসব্জী পানিতে তলিয়ে গেছে। জেলার সাদুল্যাপুর উপজেলার বামনডাঙ্গ গ্রামের সবজি চাষী আতিয়ার রহমান জানান, সবজি চাষ আমার একমাত্র পেশা। এ দিয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করি। সে লক্ষ্যে প্রতি বছরের ন্যায় ২৫শতক জমিতে পটল, ২০ শতক জমিতে বেগুন এবং ১০ শতক জমিতে অন্যান্য সবজি চাষ করি।
কিন্তু প্রথম দফায় বন্যার পানিতে তলিয়ে সবজি ক্ষেত নষ্ট হয়। পরবর্তীতে ওই সব জমিতে পুনরায় সবজি চাষ শুরু করি, এরই মধ্যে শুরু হয় দ্বিতীয় দফ বন্যা। তরফ মহদী গ্রামের আমজাদ আলী জানান, ৩০ শতক জমিতে বিভিন্ন সবজি চাষ করি। বন্যার পানিতে সব তলিয়ে গেছে। এখন পরিবার-পরিজন নিয়ে চরম হতাশায় দিনাতিপাত করছি। জেলা কৃষি অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক রুহুল আমিন জানান, ক্ষতি পূষিয়ে নিতে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের সবজি চাষীদের প্রয়োজনীয় সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

 

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ