basic-bank

পঞ্চগড়ে অনার্স ও ডিগ্রি পরীক্ষার খাতা ফাঁসের ঘটনায় আটক ৩

এম.মোবারক হোসাইন, পঞ্চগড় প্রতিনিধিঃ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনে অনার্স ও ডিগ্রি পরীক্ষার খাতা ফাঁস করে ঘরে বসেই পরীক্ষার ব্যবস্থার মাধ্যমে ভাল ফলাফল করে দেয়ার সাথে জড়িত একটি প্রতারক চক্রের তিন সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। তাদের মধ্যে একজন মাদ্রাসা শিক্ষকও রয়েছেন।

আটককৃত সদস্যরা হলেন- জেলার বোদা উপজেলার সাবেক ছিটমহল শালবাড়ি এলাকার ইব্রাহিমের ছেলে মনির (২৮), দেবীগঞ্জ উপজেলার হাকিমপুর মৌমারী গ্রামের গীতা রায়ের ছেলে মধু রায় (২৮) ও তেঁতুলিয়া উপজেলার ভজনপুর কলেজপাড়া গ্রামের মাহমুদুল হক সরকার (৩৫)।
শুক্রবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে জেলা শহরের জালাসীপাড়া এলাকার একটি ছাত্রাবাস থেকে মাদ্রাসা শিক্ষক মনির হোসেন ও মধু রায়কে আটক করে ডিবি পুলিশ। পরে তেঁতুলিয়ার ভজনপুর এলাকা থেকে প্রতারক চক্রের আরেক সদস্য মাহমুদুল হক সরকারকে আটক করা হয়।

পুলিশ জানায়, সংঘবদ্ধ এই চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনে যে কোন পরীক্ষায় বিভিন্ন কলেজের সহজ সরল শিক্ষার্থীদের টাকার বিনিময়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের খাতা সরবরাহ এবং বদল করে পাশ করিয়ে দেয়ার নামে প্রতারিত করে আসছে। এ পর্যন্ত ৫ থেকে ৬’শ শিক্ষার্থীকে প্রতারিত করে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে চক্রটি। সম্প্রতি সফিউল ইসলাম নামের ভুক্তভোগী এক কলেজ ছাত্রের দেয়া তথ্য ও গোপন ভিডিও দেখে পুলিশ সংঘবদ্ধ ওই চক্রটিকে সনাক্ত করতে সক্ষম হয়। পরে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

পঞ্চগড় ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোফাফ্ফর হোসেন জানান, আটককৃতদের বিরুদ্ধে একটি প্রতারণার মামলা হয়েছে। এছাড়া পরীক্ষার খাতা ফাঁসের সাথে জড়িত চক্রটির বাকি সদস্যদেরও গ্রেফতার করার অভিযান চলমান রয়েছে বলেও জানান তিনি।

২৬/৮/১৭খ্রি.

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।