basic-bank

ফেসবুকে বোনের ভুয়া আইডি খোলার প্রতিবাদ করায় ভাইকে মারধর!

মোঃআসাদুজ্জামান শাওন,যশোর প্রতিনিধিঃ যশোরের চৌগাছায় বোনের ছবি দিয়ে ফেসবুকে ভুয়া আইডি খোলার প্রতিবাদের জের ধরে নাজমুল হাসান (২২) নামে এক কলেজছাত্রকে বেধড়ক পিটিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার কালিয়াকুন্ডি ব্রিজ এলাকার বাকের আলীর বাড়ির সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

আহত নাজমুল হাসান কালিয়াকুন্ডি গ্রামের দক্ষিণ পাড়ার ইসমাইল হোসেনের ছেলে। তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নাজমুল হাসান যশোর ডা. আব্দুর রাজ্জাক মিউনিসিপ্যাল কলেজে অনার্স অর্থনীতি বিভাগের ২য় বর্ষে লেখাপড়া করে। হামলাকারীরা এলাকার উঠতি বয়সের সন্ত্রাসী বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। তাদের বিরুদ্ধে নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ রয়েছে।

আহত নাজমুল হাসান জানান, তার বোন প্রিয়া খাতুন রানীয়ালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী। কালিয়াকুন্ডি গ্রামের দক্ষিণপাড়ার আব্দুল মজিদের বখাটে ছেলে উঠতি সন্ত্রাসী আমানউল্লাহ ওরফে আমান প্রিয়ার ছবি দিয়ে ফেসবুকে ভুয়া আইডি খোলে। ওই আইডি থেকে অশ্লীল ছবি ও লেখা পোস্ট করা হয়। এর আগেও প্রিয়াকে দীর্ঘদিন উত্ত্যক্ত করে আমান।

নাজমুল হাসান আরো জানান, ২ দিন আগে ফেসবুকে তার ছবি দিয়ে ভুয়া আইডি খোলার প্রতিবাদ করা হয়। এতে ওই দুর্বৃত্ত তার উপর ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। ঘটনার দিন সকালে তিনি কলেজ থেকে বাইসাইকেলে করে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় কালিয়াকুন্ডি ব্রিজ এলাকার বাকের আলীর বাড়ির সামনে পৌঁছালে আমান ও একই এলাকার আইয়ুব হোসেনের ছেলে জসিম তার উপর হামলা চালায়।

এ সময় তারা নাজমুলকে বেধড়ক পিটিয়ে জখম করে। এ ঘটনার পর থেকে দুর্বৃত্তরা ওই পরিবারকে হুমকি দিচ্ছে। আহত নাজমুল হাসানের স্বজনেরা জানান, হামলা ও জখম করার ঘটনায় তারা মামলা দায়ের করবেন ওই উঠতি সন্ত্রসীদের নাম উল্লেখ করে।

হাসপাতালের সার্জারী বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. এনকে আলম জানান, আহত নাজমুল হাসানের শরীরের একাধিক স্থানে আঘাতে চিহ্ন রয়েছে। তার অবস্থা গুরুতর। হাসপাতালের মডেল ওয়ার্ডের ১ নম্বর বেডে তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এদিকে স্থানীয়রা জানিয়েছেন, আমান ও জসিম এলাকায় ভয়ঙ্কর প্রকৃতির। তাদের নেতৃত্বে উঠতি বয়সের যুবকদের একটি সন্ত্রাসী চক্র গড়ে উঠেছে। তারা বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িত এলাকায় একক আধিপত্য বিস্তার করতে তারা যাকে তাকে মারপিট ও চাঁদবাজি করছে। কয়েকদিন আগে এ সন্ত্রাসীরা ২ নম্বর পাশাপোল ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বর মিলনকে মারপিটে জখম করে।

এছাড়া শুকর লালন পালনকারী এক যুবকের কাছ থেকে ৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। শুকর নিয়ে ওই যুবক কালিয়াকুন্ডি এলাকায় গেলে সন্ত্রাসী আমান তার কাছে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদার টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় তার কাছ থেকে ৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়া হয়।

সম্প্রতি আমান ও তার দলবল এলাকার মেম্বরপ্রার্থী হবিবর রহমানের ছেলে মিন্টুকেও বেধড়ক মারপিট করে। বর্তমানে সন্ত্রাসী আমান ও তার ক্যাডারদের অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ট হয়ে উঠেছে।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।