মুক্তিপণের ১৭ লাখ টাকাসহ ডিবি পুলিশের ৭ সদস্য সেনাবাহিনীর হাতে আটক

Spread the love

কক্সবাজারের টেকনাফে এক ব্যক্তিকে জিম্মি করে ১৭ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে ফেরার পথে পুলিশের গোয়েন্দা (ডিবি) শাখার ৭ সদস্যকে আটক করেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

আজ বুধবার ভোরে টেকনাফের মেরিনড্রাইভ সড়কে ডিবির ওই সাত সদস্যকে আটক করা হয়।

টেকনাফের অস্থায়ী সেনা ক্যাম্পের মেজর নাজিম আহমেদ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। অপহৃত ব্যবসায়ীর নাম আবদুল গফুর। তিনি কম্বলের ব্যবসা করেন।

মেজর নাজিম আহমেদ বলেন, আবদুল গফুরকে মঙ্গলবার সকালে অপহরণ করে ডিবির একটি দল। এরপর মুক্তিপণ হিসেবে পরিবারের কাছে ৫০ লাখ টাকা দাবি করে তারা। কিন্তু দর-কষাকষির পর ওই ব্যবসায়ীর পরিবার ১৭ লাখ টাকা দিতে রাজি হয়। টাকা পাওয়ার পর তাকে ভোররাতে কক্সবাজারের টেকনাফের মেরিন ড্রাইভ এলাকায় ছেড়ে দেওয়া হয়।

এরপর ওই ব্যবসায়ীর পরিবার বিষয়টি সেনাবাহিনীকে জানালে টেকনাফের মেরিন ড্রাইভ এলাকার লম্বরী সেনাবাহিনীর তল্লাশিচৌকিতে ডিবির গাড়িটি সংকেত দিয়ে থামানো হয়। এ সময় মনিরুজ্জামান নামের একজন উপপরিদর্শক (এসআই) পালিয়ে যান।

মেজর নাজিম আরও বলেন, জেলা পুলিশের পুলিশ সুপার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সেনাবাহিনী ক্যাম্পে এসে আলোচনার মাধ্যমে আটক কর্মকর্তাদের নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আমাদের জানান তিনি। তবে উদ্ধার করা টাকা আমাদের হাতেই রয়েছে। এদিকে, আটক ডিবি সদস্যদের জেলা পুলিশের হেফাজতে দেওয়া হয়েছে বলে জানায় পুলিশ সদর দপ্তর।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ