প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাংবাদিক উৎপলের বাবার আকুতি

Spread the love

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা ক্রাইম ডট কম: নিখোঁজ সন্তানের সন্ধান চেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আকুতি জানিয়েছেন সাংবাদিক উৎপল দাসের বাবা চিত্তরঞ্জন দাস।

বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) দুপুর ১২টায় রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (ক্রাব) মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলেন এ আকুতি জানান তিনি।

অনলাইন নিউজ পোর্টাল পূর্বপশ্চিমবিডি.নিউজের সিনিয়র রিপোর্টার উৎপল গত ১০ অক্টোবর মতিঝিলের অফিস থেকে বের হওয়ার পর নিখোঁজ হন। প্রায় ১৬ দিন হয়ে গেলেও সন্তানের সন্ধান না পেয়ে সেগুনবাগিচায় ক্রাইম রিপোর্টার এসোসিয়েশন (ক্র্যাব) মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এই আকুতি জানান নিখোঁজ সাংবাদিক উৎপল দাসের পিতা চিত্তরঞ্জন দাস।

সংবাদ সম্মেলনে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক উৎপলের বাবা বলেন, আমার ছেলেকে খুজে পাচ্ছিা না। সে কোথায় আছে কেমন আছে তাও জানিনা। আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুতি জানাই, আমার ছেলেকে ফিরিয়ে দিন।

এসময় কান্নায় ভেঙে পড়েন পূর্বপশ্চিম বিডি ডট নিউজের সিনিয়র সাংবাদিক উৎপলের বোন ববিতা রানী দাস, বিনীতা রানী দাস। তাদের ভাষ্য, আমার ভাই প্রতিদিন একবার আমাদের কল দিয়ে জিজ্ঞেস করতো দিদি কেমন আছিস। আজ কতদিন হলো আমার সোনা ভাইটা আমাকে কল দেয় না। আমরা কী এমন ক্ষতি করেছি। উৎপলের জন্য আমার মা কিছু খায় না। কারো সাথে কথা বলে না। জানি না এই মুহূর্তে আমার মা কী করছে। আমারা কিছু চাই না, আমার ভাইটারে চাই।

সংবাদ সম্মেলনে পূর্বপশ্চিমবিডি.নিউজের প্রধান সম্পাদক পীর হাবিবুর রহমান লিখিত বক্তব্যে বলেন, সাংবাদিক উৎপলকে কে নিয়েছে তা আমরা জানিনা। রাষ্ট্রের কাছে আবেদন তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হোক।

তিনি বলেন, ১৬দিনেও প্রাণবন্ত, প্রাণচঞ্চল রিপোর্টার উৎপল দাস আমাদের মাঝে ফিরে আসেনি। যা-শুধু উদ্বেগের বিষয় নয়; তার স্নেহশীল বাবা-মায়ের জন্য ঘুম হারাম করা ভয়ের বিষয়। একটি গণতান্ত্রিক সমাজে এতোদিন ধরে আমাদের সন্তানতুল্য সহজ-সরল উৎপল দাস কোথায়, কেমন আছে? কী ঘটেছে তার জীবনে, কেন তার সন্ধান মিলছে না, আমরা বুঝতে পারছি না।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও নিরাপত্তা সংস্থার কর্মকর্তাদের প্রতি এমনকি দেশবাসীর কাছে আমাদের আবেদন যার যার জায়গা থেকে উৎপলকে ফিরিয়ে আনতে, তার সন্ধানে তৎপর হোন। একটি স্বাধীন রাষ্ট্রে আজ একজন তরতাজা তরুণ সংবাদকর্মী এভাবে দিনেদুপুরে নিখোঁজ হয়ে হারিয়ে যেতে পারে না।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শাবান মাহমুদ বলেন, আমরা নবম ওয়েজ বোর্ডের দাবিতে যে আন্দোলন করছি, সে আন্দোলনের এজেন্ডায় উৎপল দাসের নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টাকে অন্তর্ভুক্ত করেছি। উৎপলকে যতদিন আমরা ফিরে না পাবো ততদিন মানববন্ধন, বিক্ষোভসহ নানা কর্মসূচি পালন করবো।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা সাংবাবিদক ইউনিয়নের সভাপতি শাবান মাহমুদ, সধারণ সম্পাদ সোহেল আজাদ চৌধুরী, ঢাকা রিপোর্টাার্স ইউনিটির সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা, সাধারণ সম্পাদক মোরসালিন নোমানী, ও উৎপল দাসের ভাই মনোহর চন্দ্র দাস, পলাশ চন্দ্র দাস, শুভ দেব ভৌমিক প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ