basic-bank

গাড়ীতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ভূয়া মনোগ্রাম লাগিয়ে প্রতারণা; গ্রেফতার- ৩

ঢাকা ক্রাইম ডেস্ক: এসএসএফ এর জ্যাকেট, ওয়ারলেস সেট, ছবিসহ প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে প্রবেশের অনুমতিপত্র, পিস্তল, গাড়ীর গ্লাসে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে প্রবেশের অনুমতির স্টিকার ও ড্যাসবোর্ডে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার এর মনোগ্রাম স্ট্যান্ড রয়েছে যার সবগুলোই ভূয়া!

কখনো উত্তরা তো কখনো খিলগাঁও। পুরো ঢাকা শহরে দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছিল প্রতারক চক্রটি। নিজেদের কখনো পরিচয় দিচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের উপদেষ্টা পরিষদের সিনিয়র সচিবের ছেলে, কখনো বডিগার্ড আবার কখনো যাচ্ছে সচিব বনে।

এভাবেই বিভিন্ন মহলের নামে মিথ্যা প্রভাব খাটিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছিল অনেকের অর্থ। এমনই এক সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা (পূর্ব) বিভাগের একটি দল।

গোয়েন্দা পুলিশ সূত্রমতে, ডিবির পূর্ব বিভাগের দলটি ২৯ জুলাই, ২০১৭ গোপন তথ্যের ভিত্তিতে সন্ধ্যা ছয়টায় সবুজবাগ থানার ২১৩ ডরিক হাকিম টাওয়ার এর সামনে থেকে একটি প্রাইভেট কারসহ তিনজনকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতরা হলো- মোঃ সাকিব, খন্দকার দিলদার আহম্মেদ ও মোঃ ইসমাইল হোসেন।

এ সময় তাদের হেফাজত হতে এসএসএফ এর ব্যবহৃত অনুরূপ একটি জ্যাকেট, তিনটি ওয়ারলেস সেট, গ্রেফতারকৃতদের নামে তাদের ছবিসহ প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে প্রবেশের দুইটি জাল অনুমতি পত্র, স্টিল বডির একটি খেলনা পিস্তল, একটি প্রাইভেট কার যার সামনের গ্লাসে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে প্রবেশের অনুমতির স্টিকার ও ড্যাসবোর্ডে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার এর মনোগ্রাম স্ট্যান্ড রয়েছে যার সবগুলোই ভূয়া।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসে তাদের অপরাধের বর্ণনা। উক্ত স্টিকার, জ্যাকেট, মনোগ্রাম ব্যবহার করে ‘সরকারি কর্মকর্তা’ সেজে প্রভাব খাটিয়ে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেয়াই ছিল তাদের কাজ। তবে শেষ পর্যন্ত কাজে লাগেনি কোন ‘প্রভাব’। আপাতত সদলবলে তাদের ঠিকানা হাজতখানা।

সূত্রঃ ডিএমপি নিউজ।

 

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।