মাদারীপুরে পেঁয়াজের দাম আকাশ ছোয়া

Spread the love

আমানউল্লাহ আমান,মাদারীপুর: মাদারীপুরে প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৯০ থেকে ১০০ টাকায়। মজুদদারদের কারসাজিতেই দাম বাড়ছে বলে সংশ্লিষ্ট মহলের ধারণা। তবে সবজির দাম নিন্ম মূখী। এছাড়া অন্য নিত্যপণ্যের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। মাদারীপুর শহরের বাজারগুলোতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজ ৯০ টাকা থেকে ১০০ টাকায় এবং ভারতীয় পেঁয়াজ ৭০ থেকে ৮০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। হঠাৎ করে কয়েক দিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধিতে সাধারণ মানুষ হতভম্ব। কয়েক দিন আগেও প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজ ৬৫ থেকে ৭০ এবং ভারতীয় পেঁয়াজ ৪৫ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। ক্রেতারা বলছেন, বাজারে পেঁয়াজের ঘাটতি নেই। মজুদদারদের কারসাজিতে দাম বেড়েছে। প্রশাসনের উচিত এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া। খুচরা বিক্রেতারা বলছেন, নতুন পেঁয়াজ আসলে দাম কমতে শুরু করবে কিন্তু বাজারে নতুন পেঁয়াজ আসার পরও পেঁয়াজের দাম আকাশ ছোয়া। ।

এদিকে শীত মৌসুমের প্রায় সব সবজিই বাজারে চলে এসেছে এবং সরবরাহও বেড়েছে। ফলে কমতে শুরু করেছে সবজির দাম। খুচরা বিক্রেতারা বলছেন, সরবরাহ বৃদ্ধির কারণে সবজির দাম কমেছে। সরবরাহ আরেকটু বৃদ্ধি পেলে দাম আরো কমবে। খুচরা বিক্রেতারা প্রতিকেজি আলু ১৫ থেকে ১৮, বেগুন ৩০ থেকে ৪০, ফুলকপি ২৫, বাঁধাকপি প্রতিপিস ২৫, পটোল ৩০, শসা ২০থেকে ২৫, বিভিন্ন রকম শাক ৫ থেকে ১০, পেঁপে ১৫ থেকে ২০ , মিষ্টি কুমড়া ৩০ থেকে ৪০, করোলা ৩০ থেকে ৩৫, প্রতিটি লাউ-কুমড়া ৪০ থেকে ৫০ টাকা, প্রতিহালি কলা ১৫ থেকে ২০ টাকা, লেবু প্রতি হালি ২০ থেকে ২৫ টাকা, আদা ৮০ থেকে ৯০,রসুন ৬৫ থেকে ৭০, শিম ২৫ থেকে ৩০, কাঁচামরিচ ১০০ থেকে ১২০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।
এছাড়া বাজারে নতুন চাল আসতে শুরু করায় দাম আরেক দফা কমেছে। পুরান বাজার টলঘরে খুচরা চাল বিক্রেতারা প্রতিকেজি নতুন গুটিস্বর্ণা ৪০ থেকে ৪৪, এলসি চাল ৩৫/৪০, নতুন পারিজা/স্বর্ণা ৫৫/৬০, আটাশ চাল ৪৫/৫৪, মিনিকেট ৫৮ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি করছেন। প্রতিকেজি আটা খোলা ২৩/২৫এবং প্যাকেট আটা ৩১/৩৩ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

ARE YOU LOOKING FOR YOUR OWN PIECE OF PARADISE?

Prominent Living Ltd is a premier licensed real estate company in Bangladesh with its own unique identity.

Ongoing Project | Prominent Tower
Location: Sector 3, Uttara, Dhaka, Bangladesh.
Type: Commercial Building | 01716 638059, 01726 265195

এদিকে বিভিন্ন অঞ্চলথেকে খাল-বিল-নদীর মাছ বাজারে আসায় দাম আরো কমেছে। প্রতিকেজি ছোট মাছ রকম ভেদে ১২০ থেকে ৫০০, রুই-কাতলা ২২০ থেকে ৩০০, সিলভারকার্প ৯০ থেকে ১৫০, পাঙ্গাস ৮০ থেকে ১২০ ইলিশ রকমভেদে ৩৫০ থেকে ৯০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এদিকে প্রতিকেজি ব্রয়লার মুরগি ১১০ থেকে ১১৫, সোনালি ১৮০ এবং দেশি ২৫০ টাকা থেকে ৩৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজি গরুর মাংস ৪০০ টাকা থেকে ৪৫০ টাকা, খাসির মাংস ৬৫০ থেকে ৭০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

 

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ