basic-bank

বার্ষিক আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দিয়েছে আওয়ামী লীগ

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আজ নির্বাচন কমিশনে (ইসি) দলের বার্ষিক আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দিয়েছে।

সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য আবদুর রাজ্জাক এমপির নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল প্রধান নির্বাচন কমিশনারের কাছে দলের ২০১৬ সালের বার্ষিক আয়-ব্যয়ের এই হিসাব জমা দেয়।

প্রতিনিধি দলে আরও ছিলেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি এমপি ও উপ দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া।

পরে ড. আব্দুর রাজ্জাক সাংবাদিকদের বলেন, আওয়ামী লীগের তহবিলের বড় একটি অংশ ব্যাংকে স্থায়ী আমানত হিসেবে জমা রাখা হয়েছে। বাকি একটি অংশ নিয়মিত ব্যয়ের জন্য রাখা হয়। এ বছর ব্যাংকে আমানত রেখে লাভ হয়েছে ১ কোটি ২৪ লাখ ৬৪ হাজার ৭৯৬ টাকা।

আওয়ামী লীগের ব্যাংক একাউন্টে বর্তমানে ২৫ কোটি ৫৮ লাখ ১১ হাজার ৪৪১ টাকা জমা রয়েছে।

২০১৬ সালে তাদের আয় হয়েছে ৪ কোটি ৮৪ লাখ ৩৪ হাজার ৯৭ টাকা। একই সময়ে ব্যয় হয়েছে ৩ কোটি ১ লাখ ৮৪ হাজার ৭৯৯ টাকা। এ বছরে দলের তহবিলে অতিরিক্ত রয়েছে ১ কোটি ৮২ লাখ ৪৯ হাজার ২৯৯ টাকা।

দলের আয়ের উৎস হিসেবে দেখানো হয়েছে, কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী সংসদ, উপদেষ্টা পরিষদ, জাতীয় কমিটি, সহ-সম্পাদক, কেন্দ্রীয় উপ-কমিটি, প্রাথমিক সদস্য সংগ্রহ ফি, সংসদ সদস্য, উপ-নির্বাচনে মনোনয়ন ফরম বিক্রি, অনুদান এবং ব্যাংক থেকে প্রাপ্ত অর্থ।

ব্যয়ের খাত হিসেবে দেখানো হয়েছে, কর্মচারীদের বেতন, বোনাস, আপ্যায়ন ও অন্যান্য খরচ, কেন্দ্রীয় জনসভা, নির্বাচনী অফিস ব্যয়, পত্রিকা প্রকাশনা ও ত্রাণ কার্যক্রম।

দলের আয়ের উৎস হিসেবে দেখানো হয়েছে, কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী সংসদ, উপদেষ্টা পরিষদ, জাতীয় কমিটি, সহ-সম্পাদক, কেন্দ্রীয় উপ-কমিটি, প্রাথমিক সদস্য সংগ্রহ ফি, সংসদ সদস্য, উপ-নির্বাচনে মনোনয়ন ফরম বিক্রি, অনুদান এবং ব্যাংক থেকে প্রাপ্ত অর্থ।

ব্যয়ের খাত হিসেবে দেখানো হয়েছে, কর্মচারীদের বেতন, বোনাস, আপ্যায়ন ও অন্যান্য খরচ, কেন্দ্রীয় জনসভা, নির্বাচনী অফিস ব্যয়, পত্রিকা প্রকাশনা ও ত্রাণ কার্যক্রম।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।